চাঁপাইনবাবগঞ্জে একব্যক্তির গলা কাটা লাশ উদ্ধার

1985

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার শিয়ালা গাবতলা এলাকার গোলাম মোর্শেদ মিলন (৪০) নামের এক ব্যক্তির গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত মিলন মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফার ছেলে। এঘটনায় চারজনের বিরুদ্ধে সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।
স্থানীয় ও মামলার বরাত দিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এ একে এম আলমগীর জাহান জানান, মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফার দুই ছেলে অ্যাডভোকেট ইলিয়াস হোসেন ও গোলাম মোর্শেদ মিলন একই বাড়িতে থাকতেন। তাদের মধ্যে পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় ও জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল। জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ মিমাংসায় গত বুধবার রাতে দুই ভাইকে নিয়ে স্বজনরা বসেছিলেন। বৃহস্পতিবার সকালে ঘুমিয়ে থাকা অবস্থায় মিলনকে গলা কেটে নিজ কক্ষে হত্যা হত্যা করা হয়। ঘটনার পর থেকে ইলিয়াস হোসেন পলাতক রয়েছেন।
নিহতের লাশ উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্তের পর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এঘটনায় ইলিয়াস হোসেনসহ চারজনকে অভিযুক্ত করে মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্তদের ধরতে পুলিশ প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।