নেতানিয়াহুর পদত্যাগের দাবিতে ইসরায়েলে ব্যাপক বিক্ষোভ

166

গত শনিবার ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ও তার সরকারের দুর্নীতির বিরুদ্ধে টানা দ্বিতীয় সপ্তাহের মতো রাজধানী তেল আবিবে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। দেশটির কয়েক হাজার বিক্ষোভকারী নেতানিয়াহু’র পদত্যাগ দাবি করেছেন। পুলিশ বলেছে, এদিন প্রায় ১০ হাজার মানুষ বিক্ষোভে অংশ নেন। রোববার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স। বিক্ষোভকারীরা দুর্নীতিবিরোধী এবং নেতানিয়ানিয়াহু’র পদত্যাগের দাবি সম্বলিত বিভিন্ন প্ল্যাকার্ড বহন করেন। এগুলোতে লেখা ছিল দুর্নীতিকে না বলুন; বাম বা ডান নয়, আমরা সৎ মানুষ চাই; রাজনীতিবিদদের দুর্নীতিতে আমরা ক্লান্ত; দুর্নীতি থামাও; নেতানিয়াহু সরে যাও ইত্যাদি। ইসরায়েলে দুর্নীতির বিরুদ্ধে সচরাচর এত বিপুল সংখ্যক মানুষকে একসঙ্গে রাজপথে নামতে দেখা যায় না। এক বিবৃতিতে এ বিক্ষোভের ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছে নেতানিয়াহু’র দল ক্ষমতাসীন লিকুদ পার্টি। বিবৃতিতে বলা হয়, সরকার যখন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছ থেকে ঐতিহাসিক স্বীকৃতি আদায় করেছে; সেই মুহূর্তে এই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। একদিকে আরব বিশ্বে ইসরায়েল ও আমেরিকার পতাকা পুড়িয়ে বিক্ষোভ হচ্ছে। অন্যদিকে তেল আবিবেও বামপন্থীরা মিছিল করছে। উল্লেখ্য, দুর্নীতির অভিযোগে গত নভেম্বরে ষষ্ঠ দফায় সাক্ষ্য দেন নেতানিয়াহু। নিজের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তিনি। তার বিরুদ্ধে এক ধনকুবের ব্যবসায়ীর কাছ থেকে বড় অঙ্কের ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। এ ছাড়া একটি পত্রিকাকে ডুবিয়ে দেওয়ার বিনিময়ে অন্য একটি পত্রিকায় বেশি কভারেজ পাওয়ার জন্য চুক্তির রয়েছে তার বিরুদ্ধে। তবে প্রস্তাবিত একটি খসড়া আইনে নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে তদন্তে যেসব তথ্য পাওয়া যাবে তা প্রকাশে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বলা হয়েছে।