ওমিক্রনের মধ্যেও দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাবে ভারত

16

দক্ষিণ আফ্রিকায় ছড়িয়ে পড়েছে মহামারি করোনাভাইরাসের নতুন ভেরিয়েন্ট ওমিক্রন। সে কারণে ভারতের আসন্ন দক্ষিণ আফ্রিকা সফর নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছিল। ভারতের ক্রিকেট ভক্তরা তাকিয়ে ছিল ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ড (বিসিসিআই) কি সিদ্ধান্ত নেয়। আজ শনিবার (৪ ডিসেম্বর) এ সংক্রান্ত একটি জরুরি বৈঠক করে বিসিসিআই। ওই বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যথাসময়ে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাবে কোহলিবাহিনী। তবে সফর কিছুটা সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে।

এই সফরে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ভারতের ৩টি টেস্ট, ৩টি ওয়ানডে ও ৪টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলার কথা ছিল। টেস্ট ও ওয়ানডে হলেও আপাতত টি-টোয়েন্টি হচ্ছে না। ৪টি টি-টোয়েন্টি পরবর্তীতে সুবিধাজনক সময়ে খেলবে তারা।

বৈঠক শেষে দুপুরে বিসিসিআই’র সেক্রেটারি জয় সাহা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেছেন, ‘বিসিসিআই ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকাকে নিশ্চিত করেছে যে ভারত যথাসময়ে সফর করবে এবং ৩টি টেস্ট ও ৩টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলবে। বাকি ৪টি টি-টোয়েন্টি পরবর্তীতে সুবিধাজনক সময়ে খেলা হবে।’

দক্ষিণ আফ্রিকায় ওমিক্রনের উপদ্রবের কারণে দেশটির ওপর ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ভুক্ত দেশগুলো। সম্প্রতি নেদারল্যান্ডস সেখানে সফরে গিয়ে ওমিক্রনের কারণে মাত্র একটি ওয়ানডে খেলে দেশে ফিরে গেছে। তবে ভারত ‘এ’ দল ৩টি চারদিনের ম্যাচ খেলার জন্য ব্লুমফন্টেইনে রয়ে গেছে। গতকাল শুক্রবার তাদের দ্বিতীয় চারদিনের ম্যাচটি শেষ হয়েছে। তৃতীয় ও শেষটি আগামী সোমবার শুরু হবে।

অবশ্য দক্ষিণ আফ্রিকা সরকারের পক্ষ থেকে আগেই জানানো হয়েছে যে, ভারত দলের স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য প্রয়োজনীয় সমস্ত সতর্কতা অবলম্বন করবে তারা। সম্পূর্ণ জৈব-সুরক্ষিত পরিবেশে রাখার ব্যবস্থা করবে। এমনকি দর্শকশূন্য গ্যালারিতে ম্যাচ আয়োজনের জন্যও প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে তারা।

নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে চলমান দ্বিতীয় টেস্ট শেষে ৯ ডিসেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যাবে ভারত। ১৭ ডিসেম্বর জোহানেসবার্গে প্রথম টেস্টে মুখোমুখি হবে ভারত-দ. আফ্রিকা।