শিবগঞ্জ সীমান্তে ৫৯ বিজিবির তিন অভিযান : ইস্কাফ সিরাপ বাংলা মদ ও ডিজেল জব্দ, আটক ১

50

চাঁপাইনবাবগঞ্জের তেলকুপি, সোনামসজিদ ও শিয়ালমারা সীমান্ত এলাকা থেকে পৃথক অভযান চালিয়ে ইস্কাফ সিরাপ, বাংলা মদ ও বাংলাদেশী ডিজেল জব্দ করেছে ৫৯ বিজিবি।
পৃথক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ৫৯ বিজিবির রহনপুর ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আমীর হোসেন মোল্লা জানান, আজ রবিবার বিকেল সাড়ে ৩টায় তেলকুপি বিওপির হাবিলদার মো. শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে তেলকুপি বিওপির বিশেষ টহল দল সীমান্ত পিলার ১৮০/৯-এস হতে আনুমানিক ৩০০ গজ বাংলাদেশের অভ্যন্তরে রিফুজিপাড়া নামক স্থানে অভিযান চালায়। অভিযানে মালিকবিহীন ৯০ বোতল ইস্কাফ সিরাপ জব্দ করা হয়।
অপরদিকে জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার শিয়ালমারা সীমান্তে বাংলা মদসহ একজনকে আটক করা হয়েছে। আটক হওয়া ব্যক্তি উপজেলার উত্তর মোকিমপুর গ্রামের মৃত আ. হাকিমের ছেলে মো. রহিম মিয়া (৩৫)। গত ৩১ জুলাই শনিবার বিকেল ৫টার দিকে ৫৯ বিজিবির রহনপুর ব্যাটালিয়নের শিয়ালমারা বিওপির টহল দল তাকে আটক করে। শনিবার বিকেল ৫টার দিকে নিজস্ব তথ্যের ভিত্তিতে শিয়ালমারা বিওপির নায়েক মো. ফজলুর রহমানের নেতৃত্বে বিশেষ টহল দল সীমান্ত পিলার ১৮৭/১৭-এস হতে আনুমানিক ১ কিলোমিটার বাংলাদেশের অভ্যন্তরে উত্তর মোকিমপুর নামক স্থানে অভিযান পরিচালনা করে। এই অভিযানে ২০ লিটার বাংলা মদসহ মো. রহিম মিয়াকে আটক করা হয়।
এছাড়া জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার সোনামসজিদ স্থলবন্দর জিরো পয়েন্ট সড়ক সংলগ্ন এলাকা থেকে ১৩০ লিটার বাংলাদেশী ডিজেলসহ মো. সাদেকুল ইসলাম (৩২) নামে একজনকে আটক করেছে বিজিবি। ৫৯ বিজিবির রহনপুর ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ সোনামসজিদ বিওপির হাবিলদার মো. মনিরুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি টহল দল রবিবার সকাল ১০টায় এই অভিযান পরিচালনা করে। আটক হওয়া ব্যক্তি উপজেলার বালিয়াদিঘী গ্রামের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে।
রহনপুর ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মো. আমীর হোসেন মোল্লা এই তথ্য নিশ্চিত করে জানান, বর্তমানে করোনা পরিস্থিতিতে ভারতীয় চোরাকারবারিরা যাতে সীমান্ত অতিক্রম করে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করতে না পারে সেই লক্ষে সীমান্তে টহল ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে এবং ব্যাটালিয়ন সদর দপ্তর হতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে।