প্রতিদিন ৩ মেয়ের জন্য ১২ কিলোমিটার পাড়ি দেন বাবা

31

আফগানিস্তানের শারানা এলাকার বাসিন্দা মিয়া খান। প্রতিদিন তিনি তিন কন্যাকে মোটরসাইকেলে উঠিয়ে ১২ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে স্কুলে দিয়ে আসেন। মেয়েদের ছুটি  না হওয়া পর্যন্ত স্কুলের বাইরেই তিনি অপেক্ষা করেন। ছুটির পর মেয়েদের নিয়ে বাসায় ফেরেন তিনি। মিয়া খানের এটি নিত্যদিনের কাজ। মেয়েদের স্কুলে পড়াতে তার এই প্রাত্যহিক গল্পই এখন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছে। মিয়া খানের তিন কন্যা যে স্কুলটিতে পড়ে সেটি সুইডিশ কমিটি নামের একটি বিদেশি এনজিও পরিচালনা করে। ওই স্কুল কর্তৃপক্ষই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মেয়েদের জন্য বাবার এই কষ্টের গল্পটি প্রকাশ করেছে। মিয়া খান চান তার মেয়েরা যেন ডাক্তার হয়। এ কারণেই তিনি মেয়েদের পড়ানোর ওপর গুরুত্ব দিচ্ছেন বলে জানান। তিনি বলেন, ‘আমি অশিক্ষিত, আর আমি দিনমজুরের কাজ করি। তবে আমাদের মেয়েদের পড়াশোনা আমার কাছে অনেক বেশি মূল্যবান। কারণ আমাদের এলাকায় কোনো মহিলা ডাক্তার নেই। মেয়েদেরকে আমার ছেলেদের মতো  করে পড়াশোনা করানোই আমার সবচেয়ে বড় আকাঙ্খা’।