01713248557

মেটার এআই চ্যাটবট ফেসবুকে যেভাবে সাহায্য করবে

মেটার এআই চ্যাটবট ফেসবুকে যেভাবে সাহায্য করবে   কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা এরইমধ্যে দখল করে আছে সব জায়গা। বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় এআই চ্যাটবট হচ্ছে চ্যাটজিপিটি। মাইক্রোসফটের এই চ্যাটবটের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে অন্যরাও চ্যাটবট এনেছে। মেটা অনেকদিন আগেই তাদের নিজস্ব এআই চ্যাটবট এনেছে। মেটার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে এরইমধ্যে যুক্ত হয়েছে এ এআই। এললামা ৩ লার্জ ল্যাঙ্গুয়েজ মডেল দিয়ে তৈরি এই চ্যাটবট। মেটার নতুন এআই রোবটের মাধ্যমে নানা টাস্ক করতে পারবেন ইউজাররা। চ্যাটজিপিটি, জেমিনি এবং কোপাইলটের মতোই জবাব দেবে মেটা এআই চ্যাটবট।মেটার এআই দিয়ে কীভাবে এবং কী কী কাজ করতে পারবেন—নির্দিষ্ট কোনো রেস্তোরাঁ খুঁজে দেওয়া, ট্রিপ প্ল্যানিং, হোমওয়ার্ক করে দেওয়াসহ একাধিক কাজ করা যাবে এই চ্যাটবট দিয়ে। পাশাপাশি মেসেজ, ই-মেইল, রেজুমি, নিবন্ধ ইত্যাদি তৈরি করার ক্ষেত্রেও সাহায্য নিতে পারেন মেটা এআই চ্যাটবটের। এছাড়াও এআই ছবি তৈরি করা খবরের সংক্ষিপ্ত বর্ণনা জানা এবং ব্যবসার জন্য নতুন আইডিয়া জেনারেট করার মতো টাস্ক করা যাবে।অনেকেই ভাবছেন এসব কাজ তো অন্যান্য চ্যাটবটও করে। তাহলে এই চ্যাটবটের বিশেষত্ব কী? সংস্থার দাবি, মেটা এআই চ্যাটবট ইউজারের দৈনন্দিন জীবনে যোগ হতে চলেছে। কারণ সারাদিনে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করে মোবাইল ব্যবহারকারীরা। আর সেখানেই যোগ হবে চ্যাটবট অর্থাত্ আপনাকে আলাদা করে কোথাও যেতে হবে না। চ্যাটজিপিটির ক্ষেত্রে বিষয়টা কিছুটা আলাদা। এর জন্য আপনাকে ই-মেইল দিয়ে অ্যাকাউন্ট খুলতে হয় এবং আলাদা অ্যাপ ও ওয়েব ভিজিট করতে হয়। ফেসবুকে এই এআই চ্যাটবট যেভাবে ব্যবহার করবেন—ফেসবুকে সার্চ অপশনে ভিজিট করতে হবে। সেখানেই থাকবে ‘আস্ক মেটা এআই এনিথিং’ অপশন। এতে ট্যাপ করলেই খুলে যাবে চ্যাটবট। ইনস্টাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ এবং মেসেঞ্জারেও সার্চ অপশনে আসতে পারে এআই চ্যাটবট। ধরুন, মেসেঞ্জারে কাউকে অভিনব কিছু পাঠাতে চান অথবা ফেসবুকে এআই ছবি পোস্ট করতে চান, সেক্ষেত্রে সাহায্য নিতে পারেন মেটা এআই চ্যাটবটের।

লাখ টাকার অনিবন্ধিত ফোন ব্যবহারকারীদের খুঁজতে নির্দেশ পলকের

লাখ টাকার অনিবন্ধিত ফোন ব্যবহারকারীদের খুঁজতে নির্দেশ পলকের লাখ টাকা দামের অনিবন্ধিত মোবাইল ফোনের ব্যবহারকারীদের ট্র্যাক করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) নির্দেশ দিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। আজ রাজধানীর তেজগাঁওয়ে টেলিযোগাযোগ অধিদপ্তরে টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি সাংবাদিকদের সংগঠন টেলিকম এন্ড টেকনোলজি রিপোর্টারস নেটওয়ার্ক বাংলাদেশ টিআরএনবি আয়োজিত ‘দেশে মোবাইল হ্যান্ডসেট উৎপাদনে চ্যালেঞ্জ ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক সেমিনারে এ নির্দেশনা দেন। দেশে ব্যবহৃত নিবন্ধিত মোবাইল ফোনের ডাটাবেইজ বিটিআরসিকে সংরক্ষণ এবং তা প্রয়োজনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, এনবিআর এবং ভোক্তা সংরক্ষণ অধিদপ্তরকে তাৎক্ষণিক সরবরাহেরও নির্দেশ দেন পলক।

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হলে করনীয় কী?

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হলে করনীয় কী? এই সময়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোর মধ্যে সব থেকে জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্ম হচ্ছে ফেসবুক। অধিকাংশ ব্যবহারকারী ফেসবুকে স্ট্যাটাস পোস্ট করার পাশাপাশি নিজের কিংবা পরিবারের ছবি ও ভিডিও শেয়ার করে থাকেন। তাই ফেসবুকে প্রয়োজন বাড়তি নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। যদিও এরইমধ্যে বেশ কয়েকটি নিরাপত্তা ফিচার যুক্ত করেছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। তবে নিরাপত্তা ফিচার থাকার পরও হ্যাক হতে পারে আপনার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট। অ্যাকাউন্ট হ্যাক হলে যা করবেন: ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক হলে বেশ কয়েকটি কাজ করতে হবে। প্রথমেই ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে জানাতে হবে আপনার অ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়ার তথ্য। এরপর যত দ্রুত সম্ভব ফেসবুকের বন্ধুদের জানাবেন, যেন তারা কোনো বিড়ম্বনায় না পড়ে। এ ছাড়া থানায় জিডি করতে হবে। হ্যাকারের যদি কোনো অসৎ উদ্দেশ্য থেকে থাকে তাহলে আপনার আইডি দিয়ে অপরাধমূলক কাজ করতে পারে। সেই দায়ভার এড়াতে থানায় জিডি করুন। যেভাবে ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে জানাবেন: অ্যাকাউন্ট হ্যাকের বিষয়টি ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে জানাতে প্রথমে Facebook.com/hacked সাইটে যেতে হবে। অ্যাকাউন্টের সঙ্গে যুক্ত ইমেইল অ্যাড্রেস বা ফোন নম্বর লিখতে হবে। এরপর বেশ কয়েকটি প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। যেসব তথ্য চাওয়া হবে তা দিতে হবে। কারণ এটি প্রমাণ করবে যে আপনিই ওই অ্যাকাউন্টের প্রকৃত মালিক। এরপর রিপোর্ট করলে ফেসবুক ওই অ্যাকাউন্টের সঙ্গে সংযুক্ত ইমেইল অ্যাড্রেস বা ফোন নম্বর ব্যবহার করে অ্যাকাউন্ট রিকভার করতে সহায়তা করবে। ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে জানানোর পর বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। বন্ধুদের আপনার হ্যাক হওয়া অ্যাকাউন্টটিতে রিপোর্ট করতে বলুন। কারণ ওই অ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়ার বিষয়ে ফেসবুকে যত বেশি রিপোর্ট পড়বে, তত দ্রুত অ্যাকাউন্ট ফেরত পাওয়া যাবে। সূত্র: ফেসবুক সাপোর্ট

হারানো জিনিস খুঁজে দিবে গুগল অ্যাস্ট্রা

হারানো জিনিস খুঁজে দিবে গুগল অ্যাস্ট্রা বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় সার্চ ইঞ্জিন গুগল। প্রতিষ্ঠানটি ব্যবহারকারীদের জন্য নিয়মিত নতুন নতুন ফিচার নিয়ে হাজির হচ্ছে। সেই ধারাবাহিকতায় এবার প্রোজেক্ট গুগল অ্যাস্ট্রা নামে আরো একটি নতুন ফিচার নিয়ে আসছে। এর সাহায্যে ব্যবহারকারীরা সহজেই তাদের ফোন থেকে হারানো জিনিস খুঁজে পাবেন। গুগল অ্যাস্ট্রা সার্চ ইঞ্জিনের নতুন প্রোজেক্ট। যেখানে আরো আধুনিক এআই অ্যাসিস্ট্যান্ট তৈরি করা যাবে। যা অনেকটা ওপেনএআইয়ের নতুন জিপিটি ৪০ মডেলের অনুরূপ। যা ক্যামেরার মাধ্যমে প্রত্যেকটি জিনিস বিশ্লেষণ করতে পারবে। এআইয়ের কাছে যা যা ধরা পড়বে (ফোনের ক্যামেরার মাধ্যমে) তা সবই স্টোরেজে সেভ করে নেবে। সেফটিপিন থেকে স্মার্টফোন সব কিছুই বোঝার ও বিশ্লেষণ করার ক্ষমতা থাকবে এআই অ্যাসিস্ট্যান্টের কাছে। একটি কার্যকর এআই অ্যাসিস্ট্যান্ট হতে চলেছে গুগল অ্যাস্ট্রা। এটি যেকোনো কোডও পড়তে পারবে এবং সেই বিষয়ে বিশদ তথ্য জানিয়ে দেবে। আপনার এলাকা দেখে আপনি কোথায় থাকেন, কী নাম সব বলে দেবে এই অ্যাসিস্ট্যান্ট। এমনকি কোন জিনিস শেষ কোথায় দেখেছিল তাও জানাতে সক্ষম। এআইয়ের মধ্যে এটি একটি যুগান্তকারী আবিষ্কার হতে পারে। এ ছাড়াও গুগল অ্যাস্ট্রাকে ব্যবহারকারী একাধিক প্রশ্ন করতে পারবেন। তবে এটি সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছাতে সময় লাগবে। তবে গুগল জানিয়েছে, এটির বেশকিছু সুবিধা জেমিনিতে পাওয়া যাবে। শুধু ক্যামেরা ওপেন করলেই ফিচারটি অন হয়ে যাবে। এই ফিচারের সঙ্গে ওপেনএআই জিপিটি ৪০-এর অনেকটা মিল রয়েছে বলে দাবি করা হচ্ছে। যা কিছুদিন আগেই উন্মোচন করেছে কোম্পানিটি। এখানে শুধু সোজা একটি লাইন এঁকে এআই অ্যাসিস্ট্যান্টকে প্রশ্ন করতে পারেন। হারানো জিনিসও খুব সহজে খুঁজে পাবেন। গুগল এআই অ্যাসিস্ট্যান্ট ছাড়াও, নতুন অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ১৫ নিয়েও বড় ঘোষণা দিয়েছে গুগল। যা শিগগিরই গুগল পিক্সেল ৮এ সিরিজ স্মার্টফোনে রোল আউট হচ্ছে। ওয়ানপ্লাস এবং স্যামসাংয়েরও বেশ কিছু ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনে আসছে অ্যান্ড্রয়েড ১৫।