২০ মাসে সর্বনিম্নে নামলো ভারতের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ

84

দক্ষিণ এশিয়ার বৃহৎ শক্তি ভারতের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ কমতে শুরু করেছে। গত ১৫ জুলাই শেষ হওয়া সপ্তাহে ভারতের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৭৫০ কোটি ডলার কমে দাঁড়িয়েছে ৫৭ হাজার ২০০ কোটি ডলার। এর আগে ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে ভারতের রিজার্ভের পরিমাণ দাঁড়িয়েছিল ৫৭ হাজার ২০০ কোটি ডলার। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া ও বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড এ খবর জানিয়েছে। খবরে বলা হয়, বৈদেশিক মুদ্রা ডলারের দাম স্থিতিশীল রাখতে রিজার্ভ ব্যাংক ৫ হাজার কোটি ডলার বাজারে ছেড়েছে। তার জেরে রিজার্ভ এতটা কমেছে।

বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড বলছে, ভারতের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ বর্তমানে ২০ মাসের মধ্যে সর্বনিম্নে নেমেছে। ২০২০ সালের ৬ নভেম্বর ভারতের রিজার্ভের পরিমাণ ছিল ৫৬৮ বিলিয়ন ডলার। দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার (আরবিআই) গভর্নর শক্তিকান্ত দাস বলেছেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংক রুপি বাজার স্থিতিশীল রাখার জন্য ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি নিয়েছে। বর্তমানে দেশটির বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ যথেষ্ট আছে বলে আশ্বস্ত করেছেন তিনি। আমদানি ব্যয়, ঋণ পরিষেবার প্রয়োজনীয়তা এবং বহিঃপ্রবাহের কারণে চাহিদার তুলনায় বাজারে বৈদেশিক মুদ্রার সরবরাহের প্রকৃত ঘাটতি রয়েছে বলে স্বীকার করেছেন শক্তিকান্ত দাস। তিনি বলেছেন, আরবিআইয়ের কাছে পর্যাপ্ত রিজার্ভ রয়েছে এবং তা নিশ্চিত করতে বাজারে ডলার সরবরাহ করছে।