স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

212

চাঁপাইনবাবগঞ্জে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ১ লাখ টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরো ১ বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ মো. শওকত আলী আসামির অনুপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণা করেন।
নিহত সবিনা সরেন (৩২) নাচোল উপজেলার খিটকা গ্রামের শ্রীতল সরেনের মেয়ে এবং দণ্ডিত গোলাপ হাসদা (৪৬) রাজশাহীর তানোর উপজেলার শালতলা চকরাতরাম গ্রামের পরমেশ্বরের ছেলে।
মামলার বরাত দিয়ে সরকারি অতিরিক্ত পিপি আঞ্জুমান আরা জানান, ২০০৩ সালে গোলাপ হাসদার সঙ্গে সবিনা সরেনের বিয়ে হয়। এরপর থেকে নাচোলেই পৃথক বাড়িতে স্বামী-স্ত্রী বসবাস শুরু করেন। ২০১৩ সালের ৪ আগস্ট সকাল ৮টার দিকে নাচোলের খিটকা গ্রামে নিজ বাড়িতে স্বামী গোলাপ হাসদার সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় গৃহবধূ সবিনার। এর একপর্যায়ে স্বামীর কোদালের আঘাতে গুরুতর জখম হন সবিনা। তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেবার পথে ওইদিন সকাল ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়।
সবিনা খুনের ঘটনায় তার ভাই অসিন সরেন (২৯) ওই দিনই নাচোল থানায় গোলাপ হাসদাকে একমাত্র আসামি করে মামলা দায়ের করেন। মামলার পরপরই পুলিশ অভিযুক্ত গোলাপ হাসদাকে গ্রেপ্তার করে পরদিন ৫ আগস্ট আদালতে পাঠায়। গোলাপ হাসদা আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা (আইও) ও নাচোল থানার তৎকালীন উপপরিদর্শক ইকবাল হোসেন ২০১৪ সালের ২৬ জানুয়ারি গোলাপ হাসদাকে একমাত্র অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।
১১ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ ও শুনানি শেষে আদালত গতকাল বুধবার গোলাপ হাসদাকে দোষী সাব্যস্ত করে এই দ- প্রদান করেন।