শীতকালীন অলিম্পিকে দ. কোরিয়ায় দল পাঠাবে উ. কোরিয়া

598

কোরীয় উপদ্বীপ অঞ্চলে সামরিক উত্তেজনা সত্ত্বেও দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠেয় ২০১৮ সালের শীতকালীন অলিম্পিক গেমসে দল পাঠাবে পারমাণবিক শক্তিধর প্রতিবেশী উত্তর কোরিয়া। গেমস আয়োজক কমিটির প্রধান লী হী- বিয়ম একথা জানিয়েছেন। সাবেক এই কুটনীতিক ও বাণিজ্যমন্ত্রী আরো বলেছেন, দুই দেশের মধ্যে তীব্র সামরিক উত্তেজনা থাকা সত্ত্বেও দুই কোরিয়ার সীমান্ত উন্মুক্ত করে দেয়া হবে এবং উত্তর কোরিয়ার দল সড়ক পথে গিয়ে গেমে যোগ দিতে পারবে। ১৯৫০-৫৩ সাল পর্যন্ত দুই দেশের মধ্যে সৃষ্ট যুদ্ধ কোন রকমের সন্ধি ছাড়াই শেষ হয়েছে। এর ফলে দুই দেশের অভিন্ন সীমানায় সব সময় টান টান উত্তেজনা বিরাজ করে। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি সৈন্য এই সীমানায় মোতায়েন রয়েছে। স্থলপথে কোন যোগাযোগ নেই বললেই চলে। সচরাচর দুই দেশের জনগণ যাতায়াত করার জন্য ব্যবহার করে বিমান পথ, তাও আবার চীনের রাজধানী বেইজিং হয়ে। আয়োজক কমিটির মুখপাত্র ন্যান্সি পার্ক বলেন, ‘গেমসের কারণেই প্রথমবারের মত প্রতিকীভাবে তারা (উ. কোরিয়া) সড়কপথে আসবে।’ এদিকে শীতকালীন অলিম্পিকে দক্ষিণ কোরিয়ায় কোন ক্রীড়াবিদ পাঠাবে কিনা- তা এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করেনি পিয়ং ইয়ং। তার ওপর দুই দেশের মধ্যে নতুন করে যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে তাতে বিষয়টি নিয়ে অনিশ্চয়তা আরো বেড়েছে। সেই সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার নব নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি মুন-জায়ে-ইন দুই দেশের মধ্যে ‘যুদ্ধ’ বেধে যাওয়ার যে সম্ভাবনার কথা বলেছেন তাতে বিষয়টি আরো বেশি প্রকট হয়ে উঠেছে।