রোগ প্রতিরোধ করে ‘কিসমিস পানি’

193

রোগ প্রতিরোধে প্রতিদিন সকালে পান করতে পারেন কিসমিস পানি। কিসমিস পুষ্টিগুণে সমৃদ্ধ একটি খাবার। কিন্তু অনেকেরই হয়তো জানা নেই কিসমিস পানির উপকারিতা। স্বাস্থ্য সুরক্ষায় কিসমিস ভেজানো পানির জুড়ি নেই। বিশেষ করে রক্তস্বল্পতা দূর করে লিভার পরিশোধন করে কিসমিস পানি। জেনে নিন কীভাবে কিসমিস পানি তৈরি করবেন।

উপকরণ

১৫০ গ্রাম শুকনো কিসমিস

পানি ২ কাপ

প্রণালি কিসমিসগুলো বিশুদ্ধ পানিতে ভালো ভাবে ধুয়ে নিন। এবার ২ কাপ পানিতে কিসমিসগুলো দিয়ে সারারাত ভিজিয়ে রাখুন। পরেরদিন সকালে কিসমিস ছেকে নিয়ে সেই পানি খালি পেটে খেয়ে নিন। এর পরে আধ ঘন্টা আর অন্য কোনও খাবার খাওয়া থেকে বিরত থাকুন। সপ্তাহে কমপক্ষে চারদিন এই পানি খেলে এক মাসের মধ্যেই সুফল পাবেন।

পুষ্টি গুণ কিসমিস পানিতে রয়েছে পটাশিয়াম, যা হার্টকে ভাল রাখে এবং খারাপ কোলেস্টেরল দূর করতে সাহায্য করে। রয়েছে আয়রণ যা রক্তস্বল্পতা কমাতে বিশেষভাবে সাহায্য করে। এছাড়াও রয়েছে কার্বোহাইড্রেট, যা এনার্জি জোগায়। মহিলারাই বিশেষত রক্তস্বল্পতায় ভোগেন, তাই চিকিৎসকরা বলেন কিসমিস খাওয়া মহিলাদের স্বাস্থ্যের পক্ষে বিশেষ উপকারি।

কিসমিসের পানি লিভার পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে, কিস ভেজানো জল খেলে শরীরে জৈব রাসায়নিক প্রক্রিয়া শুরু হয়। যার ফলে রক্ত পরিশোধিত হতে শুরু করে। সপ্তাহে কমপক্ষে চারদিন এই কিসমিস ভেজানো পানি খেলে তা পেট পরিষ্কার রাখতে বিশেষভাবে সাহায্য করে।