মৎস্য সপ্তাহের চতুর্থ দিনে চাঁপাইনবাবগঞ্জে মোবাইল কোর্ট, কারেন্ট জাল ধ্বংস

13

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় চলছে জাতীয় সপ্তাহ। মৎস্য সপ্তাহের চতুর্থ দিনে সদর, গোমস্তাপুর ও নাচোল উপজেলা মৎস্য অফিসের উদ্যোগে মহান্দা ও পুনর্ভবা নদীতে মোবাইল কোর্ট পরিচলনা করা হয়েছে।
সদর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মাসুদ রানা জানান, মঙ্গলবার সদর উপজেলার গোবরাতলা হতে খালঘাট পর্যন্ত মহানন্দা নদীতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হয়। এ সময় ২ লক্ষাধিক টাকার ১০টি চায়না দুয়ারি ও ১৬টি কারেন্ট জাল জব্দ করা হয়। জব্দকৃত জালগুলো খালঘাটে জনসমক্ষে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়। মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইফফাত জাহান। প্রসিকিউটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন সিনিয়র উপজেলা মৎস্য অফিসার মাসুদ রানা।
গোমস্তাপুর প্রতিনিধি : চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে অবৈধ জালের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট চালিয়েছে উপজেলা মৎস্য অফিস। মঙ্গলবার পুনর্ভবা নদীতে এ অভিযান চালানো হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন গোমস্তাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আসমা খাতুন। পরে জব্দকৃত অবৈধ জালগুলো পুড়িয়ে দেয়া হয়।
গোমস্তাপুর উপজেলা মৎস্য অফিসারের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের চতুর্থ দিন পুনর্ভবা নদীতে মোবাইল কোর্ট পরিাচলনা করা হয়। অভিযানে ২০টি চায়না রিং জাল জব্দ করা হয়। যার আনুমানিক মূল্য এক লাখ টাকা। এছাড়া অভিযানে আরো ১০ হাজার মিটার ক্যারেন্ট জাল জব্দ করা হয়েছে; যার আনুমানিক মূল্য ৪০ হাজার টাকা। পরে জব্দকৃত জালগুলো পুনর্ভবা নদীর ঘাট বুড়িতলায় পুড়িয়ে দেয়া হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন- উপজেলা সহকারী মৎস্য কর্মকর্তা নাইমুল হক, মৎস্য অফিসারা নাসিরুদ্দিনসহ পুলিশ সদস্যরা।
এদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার নাচোল উপজেলায় নাচোল অংশে মহানন্দা নদীতে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ১০টি কারেন্ট জাল (১০০০ মিটার) জব্দ করা হয়; যার মূল্য প্রায় ২০ হাজার টাকা। জব্দকৃত জালগুলো পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।
মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন নাচোল উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাইমেনা শারমীন। প্রসিকিউটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন সিনিয়র উপজেলা মৎস্য অফিসার আলী হোসেন শামীম।