মাটি পরীক্ষা করে রাসায়ানিক সার ব্যবহারে কৃষকদের পরামর্শ

120

কৃষি মন্ত্রণালয়ের সম্প্রসারণ অনুবিভাগের অতিরিক্ত সচিব রবীন্দ্রশ্রী বড়য়া বলেছেন, একজন মানুষের সুস্থ সবল ও সুন্দর জীবন যাপনের জন্য যেমন নিয়মিত ও পরিমিত আহার গ্রহণ করা প্রয়োজন ঠিক তেমনি জমিতে প্রয়োজনমাফিক সুষম সার ব্যবহার করা প্রয়োজন। কারণ অধিক মাত্রায় রাসায়নিক সার ব্যবহারের ফলে জমির উর্বরতা শক্তি হারিয়ে ফেলে। কাজেই অধিক রাসায়নিক সার ব্যবহারের অপকারিতা কৃষকের কাছে তুলে ধরতে হবে। শুধু তাই নয়-মানুষের যেমন নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষার প্রয়োজন হয় ঠিক তেমনি মাটি পরক্ষা করতে হবে এবং সারের অপচয় রোধে সুষম মাত্রায় সার ব্যবহার করে জমির উর্বরতা রক্ষা করতে হবে। একাজে তিনি কৃষকদের এগিয়ে আসার অনুরোধ জানান।
আজ সকালে রাসায়নিক সারের অপচয় রোধে নাচোলের নেজামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে কৃষকদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। “সুস্থ জীবনের জন্য সুস্থ মাটি” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নাচোল উপজেলা কৃষি অফিসের সহযোগিতায় মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইনস্টিটিউট চাঁপাইনবাবগঞ্জ এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ছাব্বির হোসেনের সভাপতিত্বে মতবিনিময়সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, এস. আর. ডি. আই.’র মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও প্রকল্প পরিচালক ড. বেগম সামিয়া সুলতানা, একই প্রতিষ্ঠানের মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা আ ফ ম মঞ্জুরুল হক, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর চাঁপাইনবাবগঞ্জের উপ-পরিচালক ড. পলাশ সরকার, চাঁপাইনবাবগঞ্জের আঞ্চলিক উদ্যানতত্ত্ব গবেষণা কেন্দ্রের মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মোখলেসুর রহমান। কৃষকদের মধ্য থেকে বক্তব্য দেন এলাকার আদর্শ কৃষক বিথী রানী ও ময়েন উদ্দিন। অনুষ্ঠানে সূচনা বক্তব্য দেন মৃত্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইনস্টিটিউট, চাঁপাইনবাবগঞ্জের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. নুরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে কৃষি সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তাসহ কৃষকরা অংশগ্রহণ করেন। পরে ৫০ জন কৃষকের মাঝে সার সুপারিশ কার্ড বিতরণ করা হয়।