ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত হচ্ছে জেলা দুই উপজেলায় সংবাদ সম্মেলন

111

ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্ত জেলা হতে যাচ্ছে চাঁপাইনবাবগঞ্জ। আগামী বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দিবেন। এ উপলক্ষে আজ জেলার সদর ও নাচোল উপজেলায় পৃথক সংবাদ সম্মেলন করেছে উপজেলা প্রশাসন।
সরকারের আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় চতুর্থ পর্যায়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলায় আরো ৭৫টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার ঘর পাচ্ছেন। আগামী বুধবার সারাদেশের সঙ্গে একযোগে ২ শতক করে জমির দলিলসহ এইসব ঘরের চাবি উপকারভোগীদের মধ্যে হস্তান্তর করবেন এবং এই উপজেলাকে ক শ্রেণির ভূমিহীন ও গৃহহীন উপজেলা ঘোষণা করবেন।
আজ সদর উপজেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার রওশন আলী এই তথ্য সাংবাদিকদের জানান।
তিনি আরো জানান, এর আগে আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের আওতায় প্রথম পর্যায়ে সদর উপজেলায় ১৩০টি, দ্বিতীয় পর্যায়ে ৫০৮টি, তৃতীয় পর্য়ায়ে ৭১টি গৃহ ক শ্রেণির অর্থাৎ ভূমিহীন ও গৃহহীনদের প্রদান করে পুনর্বাসন করা হয়েছে। সবমিলিয়ে ৭৮৪টি পরিবারকে গৃহ প্রদান করা হলো। এক প্রশ্নের জবাবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, এরপরও যদি কোনো ভূমিহীন ও গৃহহীন পাওয়া যায় তাহলে তাদেরকে ঘর দেয়ার ব্যবস্থা করা হবে। তিনি জানান, ইসলামপুরে নতুন যারা পুনর্বাসিত হচ্ছে তাদের জন্য একটি টিনশেড মসজিদ, একটি কমিউনিটি সেন্টার ও একটি রিকশা গ্যারেজের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের অধীন বসবাসকারী পরিবারগুলোর মধ্যে যাদের স্কুল দূরে তাদের শিশুদের লেখাপড়ার বিষয়টি সরকারের নজরে দেয়া হয়েছে।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাঈমা খান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান তোসিকুল আলম বাবুল, উপজেলা কৃষি অফিসার কানিজ তাসনোভা, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মৌদুদ আলম খাঁ।

এদিকে, নাচোলে গৃহহীনদের গৃহ হন্তান্তর উপলক্ষে প্রেস ব্রিফিং অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ বিকেলে নাচোল উপজেলা পরিষদ মিনি কনফারেন্স রুমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাইমেনা শারমীন এ প্রেস ব্রিফিং করেন। এসময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিথিলা দাস, নাচোল সদর ইউপির চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসের উপ-সহকারী প্রকৌশলী জাকির হোসেন উপস্থিত ছিলেন। প্রেস বিফিং-এ উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, নাচোল উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে ১ম থেকে ৪র্থ ধাপে পর্যায় ক্রমে ৯৯৬টি গৃহনির্মাণ করে গৃহহীন পরিবারকে পুনর্বাসন করা হয়েছে। এছাড়া স্থানীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ, চেয়ারম্যান ও মেয়র এর মতামতের ভিত্তিত্বে এ উপজেলায় গৃহহীন মুক্ত ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তিনি গণমাধ্যম কর্মীদের জানান, ভবিষ্যতে এ উপজেলায় গৃহহীন পাওয়া গেলে তা আলোচনা সাপেক্ষে পুনর্বাসন ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
পরে তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ও গৃহহীনদেরকে গৃহ প্রদান করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।