প্রতিবন্ধীরাও দেশের উন্নয়নে শরিক হতে পারেন : দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে বক্তাদের অভিমত

88

সারা দেশের মতো চাঁপাইনবাবগঞ্জেও উদযাপন করা হয়েছে বিশ^ সাদাছড়ি দিবস-২০২৩। রবিবার সকাল ১১টায় জেলা প্রশাসন ও জেলা সমাজসেবা কার্যালয় আলোচনা সভার আয়োজন করে।
জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তারা তাদের অভিমত ব্যক্ত করে বলেন- বিশ্বে অনেক প্রতিবন্ধী ব্যক্তি জ্ঞান বিজ্ঞানে, আবিষ্কারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। সুযোগ পেলে আমাদের দেশের প্রতিবন্ধীরাও সেরকম ভূমিকা রাখতে পারবেন।
তারা বলেন-প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার প্রতিবন্ধীদের জন্য ভাতা চালু করেছেন। শুধু তাই নয় তারা যেন লেখাপড়া শিখে নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারে তার ব্যবস্থাও করেছেন। দেশে আজ অনেক প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় গড়ে উঠেছে। দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীসহ অন্যান্য প্রতিবন্ধীরা ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের মতো বিদ্যাপিঠে পড়াশোনা করছেন। প্রধানমন্ত্রীর উদ্ধৃতি দিয়ে বক্তারা বলেন-কাউকে পেছনে ফেলে নয়-সকলকে সঙ্গে নিয়েই এসডিজি বাস্তবায়ন করতে হবে। দেশের বিরাট অংকের প্রতিবন্ধী মানুষকে পেছনে রেখে এসডিজি কিংবা স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণ সম্ভব হবে না। কাজেই সরকারের পাশাপাশি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের উন্নয়নে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তব্য দেন, সিভিল সার্জন ডা. এস এম মাহমুদুর রশিদ, ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মাসুদ পারভেজ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবাবগঞ্জ সার্কেল) জাহাঙ্গীর আলম, জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক উম্মে কুলসুম, প্রতিবন্ধী ব্যক্তি আইনাল হক।
সূচনা বক্তব্য দেন জেলা প্রতিবন্ধী সেবা ও সাহায্য কেন্দ্রের জেলা প্রতিবন্ধী কর্মকর্তা মো. শরিয়তুল্লাহ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সমাজসেবা কর্মকর্তা ফিরোজ কবির। এসময় জেলা পর্যায়ের সকল দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
শেষে ৮ জন দৃষ্টি প্রতিবন্ধীর মাঝে স্মার্ট সাদাছড়ি বিতরণ করা হয়।