নব্বই দশকের পর্দা কাঁপানো ৪ নায়িকা যেমন আছেন তারা

51

নব্বই দশকে বড় পর্দায় একে একে এলেন শাবনাজ, মৌসুমী, শাবনূর ও পূর্ণিমা। অভিনয়ে এসেই রীতিমতো শুধু বড় পর্দা নয়, দর্শক হৃদয়ও কাঁপিয়ে দিয়েছেন। ২০০০ সালের প্রথমদিক পর্যন্ত অভিনয়ে সরব ও নিয়মিত ছিলেন তারা। এরপর অনেকে চিত্রজগৎ থেকে দূরে, কেউ আবার অনিয়মিতভাবে কাজ করছেন। দর্শকনন্দিত এ নায়িকারা এখন কেমন আছেন, কোথায় আছেন সেই খবর জানাচ্ছেন- আলাউদ্দীন মাজিদ

শাবনাজ : ১৯৯১ সালে প্রখ্যাত চলচ্চিত্রনির্মাতা এহতেশাম চলচ্চিত্রে নিয়ে আসেন শাবনাজ নামের একটি মেয়েকে। এ মেয়েটিকে নায়িকা করে তিনি নির্মাণ করেন চলচ্চিত্র ‘চাঁদনী’। এটি ছিল ওই বছর এবং ওই দশকের সেরা হিট ছবি। এরপর তিনি অনেক সিনেমায় নায়িকা হিসেবে কাজ করেছেন এবং তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। ২০০৪ সালে তার সহশিল্পী চিত্রনায়ক নাঈমকে বিয়ে করে তিনি সংসারী হন এবং অভিনয় ছাড়েন।

শাবনূর : নব্বই দশকের অন্যতম জনপ্রিয় ও ব্যস্ত নায়িকার নাম বললে প্রথমেই যার কথা আসে তিনি শাবনূর। এ নায়িকা দীর্ঘ সময় ঢাকাই চলচ্চিত্রে রাজত্ব করেছেন। ১৯৯৩ সালে প্রখ্যাত চলচ্চিত্র পরিচালক এহতেশাম পরিচালিত ‘চাঁদনী রাতে’ দিয়ে চলচ্চিত্রে পথচলা শুরু শাবনূরের। ২০১৩ সালে ্একটি পুত্র সন্তানের জন্মদানের পর অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক শাবনূর সেখানেই থিতু হন এবং দীর্ঘদিন চলচ্চিত্র থেকে দূরে থাকেন। চলতি বছরের ১০ ফেব্রুয়ারি ‘রঙ্গনা’ নামের একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পরদিনই আবার অস্ট্রেলিয়া উড়াল দেন শাবনূর।

মৌসুমী : নব্বই দশকে মুক্তি পাওয়া আলোচিত সিনেমা ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’। এ সিনেমার মধ্য দিয়ে অভিনয়ে আগমন মৌসুমীর। ১৯৯৩ সালে এ সিনেমা করার পর থেকে তাকে আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি। একের পর এক সিনেমায় অভিনয় করেছেন। পেয়েছেন সফলতা। মাঝে অভিনয়ে অনিয়মিত হলেও মৌসুমী বর্তমানে একটি সিনেমার কাজে যুক্তরাষ্ট্র রয়েছেন। এছাড়া দেশে তার কয়েকটি ছবি মুক্তির তালিকায় আছে।

পূর্ণিমা : জনপ্রিয়তার দিক থেকে পূর্ণিমাও অনেক এগিয়ে। দীর্ঘ সময় ধরে ঢাকাই সিনেমায় জনপ্রিয় নায়িকা হিসেবে অভিনয় করছেন। মাঝে সংসারে মন দেওয়ায় অভিনয় থেকে দূরে সরেন তিনি। ১৯৯৮ সালে জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘এ জীবন তোমার আমার’ দিয়ে পূর্ণিমার অভিষেক ঘটে সিনেমায়। গত কয়েক বছর ধরে আবারও চলচ্চিত্রের অভিনয়ে রয়েছেন তিনি। সর্বশেষ কাজ করেন প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার ছটকু আহমেদের ‘আহারে জীবন’ ছবিতে। এ ছবিটি আগামী ঈদে মুক্তি পাবে।