নতুন উচ্চতায় রোনালদো

281

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও লিওনেল মেসির মধ্যে কে সেরা, এ নিয়ে বিতর্ক হয়তো চলতেই থাকবে। কেননা প্রতি বছরই তারা নিত্যনতুন রেকর্ড গড়ে একে অপরকে ছাড়িয়ে যান। তবে গত শনিবার রাতে চতুর্থবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতে এবং এ নিয়ে টানা পঞ্চম বছর টুর্নামেন্টটিতে শীর্ষ গোলদাতা হয়ে মেসিকে ছাড়িয়ে গেলেন রোনালদো।
চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের ক্ষেত্রে রোনালদো চলতি মৌসুমেই মেসির সমকক্ষ হলেন কেবল। তবে মহাদেশীয় এই প্রতিযোগিতায় কার্ডিফের দুই গোল তাকে তুলে আনলো আর্জেন্টাইনটির উপর। যদিও এ প্রতিযোগিতায় গোলের সেঞ্চুরি করে রেখেছিলেন তিনি আগেই।
সঙ্গত কারণেই এ জয়ের পর রোনালদো জানান যে এটাই তার ক্যারিয়ারের সেরা মুহূর্ত। যদিও তিনি প্রতি বছরই এমনটা বলার সামর্থ রাখেন। তবে তার মতে এখন আর ‘লোকজন আমার সমালোচনা করতে পারবে না। কারণ সংখ্যা তো ভুল বলে না।’
রোনালদো এবার কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছানোর আগে আট খেলায় গোল করেছিলেন কেবল দুটি। মেসির তুলনায় পিছিয়ে ছিলেন নয় গোলে। কিন্তু শেষ আট থেকে শুরু হলো তার ‘অতিমানবীয়’ খেলা। বায়ার্নের সঙ্গে পাঁচ গোল, সেমি-ফাইনালে অ্যাটলেটিকোর সঙ্গে তিনটি মিলিয়ে মোট আট গোল নিয়ে আসেন কার্ডিফের মাঠে। সেখানে দুই অর্ধে গোলদুটি করে প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে ইউরোপিয়ান শ্রেষ্ঠত্বের মঞ্চে টানা পাঁচ আসরে সর্বোচ্চ গোলদাতা হবার রেকর্ড গড়লেন রিয়াল সুপারস্টার।
মেসি কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নেওয়ার আগে ১১ গোল করেছিলেন। রোনালদোর আগে শীর্ষ গোলদাতা হিসেবে রাজত্ব ছিল মেসির। ২০০৮/০৯ থেকে ২০১১/১২ মৌসুম পর্যন্ত প্রত্যেকটি আসরে সর্বোচ্চ গোলদাতা ছিলেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। এখন মেসির সাথে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে মোট গোলের হিসেবেও ১০৫-৯৪ ব্যবধানে এগিয়ে থাকলেন রোনালদো।
মৌসুম বিচারেও রোনালদো এবার ভাল সময় কাটালেন। কেননা সদ্য সমাপ্ত মৌসুমে পর্তুগীজটি উয়েফা সুপার কাপ, ক্লাব বিশ্বকাপ ও লা লিগা জয়ের পর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিও তুলে নিলেন।