তাসনুভা তিশার ‘মায়া’

48

গ্রামীণ বধূর সাজে তাসনুভা তিশা। গরুকে খাবার দিতে দিতে বলেন—এই যে তুই সারাদিন ঘুইরা বেড়াস। তোর পাও বিশ করে না। ক দেহি? আমি তো ইট্টুখানি আটলেই পাও বিশ করে। ওই দিন তো দু্ই কলসি পানি আইনা অ্যামুন কোমর বিশ যে শুইয়্যা পড়লাম। মাঝে মইধ্যে কী মুনয় জানস? মুনয় তোর মতন অইতে পারলে ভালো অইতো। তোর মতন জীবনডা অইলে সারাদিন ঘুইরা বেড়াইতাম আর হাম্বা হাম্বা ডাকতাম।

দৃশ্যটি স্বল্পদৈর্ঘ্য ‘মায়া’ চলচ্চিত্রের। এর নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন মডেল-অভিনেত্রী তাসনুভা তিশা। ১৮ মিনিট দৈর্ঘ্যের এই চলচ্চিত্রের গল্প লিখেছেন নির্মাতা অনিমেষ আইচ ও রাজীব আশরাফ। আর চিত্রনাট্য রচনা করেছেন শাওন কৈরী। এটি নির্মাণ করেছেন লেলিন ইসলাম।

তাসনুভা তিশা বলেন, ‘‘গ্রামীণ এক পরিবারের মা-ছেলের গৃহপালিত পশুর প্রতি যে আবেগ-অনুভূতি; সেই গল্প নিয়েই ‘মায়া’ চলচ্চিত্রটি নির্মিত হয়েছে। আশা করি, কাজটি দর্শকদের পছন্দ হবে।’’

শুরুতে উচ্চবিত্ত নারীর নানা সংকট নিয়ে ফিকশন বানানোর কথা ভেবেছিলেন পরিচালক লেলিন ইসলাম। কিন্তু শেষে একদম বিপরীত পটভূমি নিয়ে নির্মাণ করেন ‘মায়া’ চলচ্চিত্রটি।

চলচ্চিত্রটির অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন—এ কে আজাদ সেতু, ইসমাম, জাহাঙ্গীর ভূঁইয়া, মনোয়ারা বেগম প্রমুখ। সম্প্রতি অডিও-ভিডিও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জি-সিরিজের বাংলা নাটক ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি পেয়েছে চলচ্চিত্রটি।