তারা বিপজ্জনক তারকা

122

সময়ের সঙ্গে ভার্চুয়াল জগতে মানুষের সরব উপস্থিতি বেড়েই চলেছে। কিন্তু সেখানেও নিরাপত্তার গুরুত্ব অপরিহার্য। কারণ অন্তর্জালে কোথায়, কীভাবে বিপদ লুকিয়ে রয়েছে তা কেউ বলতে পারেন না!

আর এই বিপদ তারকাদের সূত্র ধরেও আসতে পারে। এমন চমকপ্রদ তথ্য উঠে এসেছে সাম্প্রতিক এক সমীক্ষায়। বিপজ্জনক তারকার তালিকার প্রথমে রয়েছেন—বলিউড অভিনেত্রী টাবু, তাপসী পান্নু ও আনুশকা শর্মা।

এ সমীক্ষা চালিয়েছে সাইবার সিকিউরিটি সংস্থা ম্যাকাফি। এই সমীক্ষার তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন—ফুটবল তারকা ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো, দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী টাবু, তৃতীয় এবং চতুর্থ অবস্থানে রয়েছেন যথাক্রমে তাপসী পান্নু ও আনুশকা শর্মা।

বিপজ্জনক তারকাদের তালিকায় পঞ্চম স্থানে বলিউড অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা, ষষ্ঠ স্থানে সারা আলী খান, নবম স্থানে হিন্দি টেলিভিশন তারকা দিব্যাঙ্কা ত্রিপাঠি দাহিয়া ও দশম অবস্থানে জায়গা পেয়েছেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খান।

যে তারকারা কোটি ভক্তের হৃদয় হরণ করেছেন, নানা সময় মানুষের পাশেও দাঁড়িয়েছেন তারা। কিন্তু তারপরও এই তারকারাই বিপজ্জনক কেন? এ প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন সাইবার সিকিউরিটি সংস্থা ম্যাকাফির কর্মকর্তা ভেঙ্কট কৃষ্ণাপুর।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে ভেঙ্কট কৃষ্ণাপুর বলেন—সাধারণত সাইবার অপরাধীরা জনপ্রিয় সিনেমা, টিভি শো, খেলার ভিডিও কিংবা তারকাদের ফাঁস হওয়া ভিডিওর সন্ধান করে থাকেন। যখন ভার্চুয়াল জগতের কোনো নাগরিক বিনামূল্যে এ সমস্ত তথ্য পাওয়ার চেষ্টা করেন, তখন নিজেদের সাইবার সুরক্ষাকে বিপদের মুখে ঠেলে দেন। ফলে হ্যাকারদের কাছে তাকে ব্যক্তিগত তথ্য প্রদান করতে হয়। আর নেটদুনিয়ায় এ সমস্ত তারকাদের সিনেমা, পোস্ট, লিকড ভিডিওর খোঁজ বেশি হয়ে থাকে, যাকে টোপ হিসেবে সাইবার অপরাধীরা ব্যবহার করে। আর তারই ভিত্তিতে সমীক্ষাটি করেছি।