চৌডালা-কানসাট সড়কে নৈশকোচ ও অটোভ্যানের সংঘর্ষে আহত ৭

124

চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরের চৌডালা-কানসাট সড়কে ঢাকাগামী নৈশকোচ ও ব্যাটারিচালিত অটোভ্যানের সংঘর্ষে ভ্যানের ৭ যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে আশঙ্কাজনক চারজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকিরা গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিচ্ছেন। গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে ওই সড়কের চৌডালা বেলালবাজার এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।
আহতরা জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার লহলামারি চাঁদপুর গ্রাম থেকে অটোভ্যানে চড়ে পার্শ্ববর্তী এলাকায় কীর্তন গান শুনতে যাচ্ছিলেন। তারা হলেনÑ ওই গ্রামের নবকুমার দাসের ছেলে প্রসেনজিত দাস (১৫), রতন হালদারের ছেলে জীবন হালদার (১৪), বীরেন ঘোষের ছেলে রিপন ঘোষ (১৮), রমেশ ঘোষের ছেলে প্রসেনজিৎ ঘোষ (১৬), নেপাল ঘোষের ছেলে গৌর ঘোষ (১১) ও নিতাই ঘোষ (১৪) এবং দুর্জয় ঘোষ (১২)।
ভ্যানচালক নিতাই ঘোষ ও পুলিশ জানায়, শুক্রবার রাতে লহলামারি চাঁদপুর গ্রামের বাসিন্দারা কীর্তন শোনার জন্য ব্যাটারিচালিত অটোভ্যানে চড়ে যাচ্ছিলেন। পথে চৌডালা ইউনিয়নের বেলালবাজার নামক স্থানে ভোলাহাট উপজেলা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী নৈশকোচ চাঁপাই এক্সপ্রেসের সঙ্গে ভ্যানের সংঘর্ষ হয়। এতে ভ্যানের সাত যাত্রী গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয় লোকজন আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক গুরুতর আহত চারজন প্রসেনজিত দাস, জীবন হালদার, রিপন ঘোষ ও প্রসেনজিৎ ঘোষকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।
এ বিষয়ে গোমস্তাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহবুবুর রহমান সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, দুর্ঘটনায় আহতরা চিকিৎসা নিচ্ছেন।