‘গাছ কোয়ারেন্টাইনে’ ৭ যুবক

136

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের দাপট বেড়েই চলেছে। প্রাণ ঝরছে প্রতিদিন অজস্র। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন বিশ্বের এক লাখ মানুষ। মোট আক্রান্ত এখন ৭ লাখ ২১ হাজারের বেশি। বিশ্বজুড়ে প্রাণহানি হয়েছে প্রায় ৩৪ হাজার।

এমতাবস্থায় দেশে দেশে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। মানা হচ্ছে স্বাস্থ্যবিধি। চলছে লকডাউন, কোয়ারেন্টাইন, হোম কোয়ারেন্টাইন, আইসোলেশনসহ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সীমিত চলাফেরা।

হোম কোয়ারেন্টাইন মানে বাড়িতে নির্দিষ্ট ঘরে অন্যদের থেকে নিজেকে আলাদা করে রাখা। কিন্তু যাদের নুন আনতে পান্তা ফুরায়, তাদের বাড়িতে সবার আলাদা ঘর নেই। তারা কী করবেন? ভারতের পশ্চিমবঙ্গে মেদিনীপুর বিভাগে পুরুলিয়া জেলার বলরামপুরে ভাঙিডি গ্রামের এমন ছিন্নমূল ৭ যুবককে এখন ‘হোম কোয়ারেন্টাইনে’ পাঠানো হয়েছে। কিন্তু তাদের তো হোমই নেই। তাই তারা এখন গাছের ওপর এই কোয়ারেন্টাইন পালন করছেন, যাকে বলা চলে ‘গাছ কোয়ারেন্টাইন’।

তারা আপাতত মাচা বানিয়ে গাছেই বসবাস করছেন।

ভারতীয় গণমাধ্যম এই সময়ের খবরে বলা হয়েছে, কাজের খোঁজে চেন্নাই পাড়ি দিয়েছিলেন ভাঙিডি গ্রামের ওই সাত যুবক। দেশজুড়ে লকডাউন। আর এমনই সময় চেন্নাই থেকে এই কয়েক দিন আগেই নিজেদের গ্রামে ফিরেন তারা। গ্রামের মাটিতে পা রাখার আগেই গিয়েছিলেন জাক্তারের কাছে। ডাক্তার তাদের বাড়িতে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলেন।