খাবার বার বার গরম করা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর

115

খাবার ফ্রিজে থাকলে ঘন ঘন রান্নার প্রয়োজন পড়ে না। তবে এমন অনেক খাবার আছে যেগুলি দ্বিতীয় বার গরম করে না খাওয়াই ভালো। এতে যেমন শরীর খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে তেমনি খাবারের গুণ ও গন্ধ নষ্ট হয়ে যায়। এতে হজমেরও নানান সমস্যা দেখা দেয় শরীরে। এমনকি খাবারে বিষক্রিয়ার হওয়ারও সম্ভাবনা থাকে। কোন কোন খাবার দ্বিতীয়বার গরম করা ঠিক নয়-

১. ভাত : ভাতে ব্যাকটেরিয়া জন্মায়। এ কারণে এটি গরম করে না খাওয়াই ভালো। বারবার গরম করে ভাত খেলে ডায়রিয়ার মতো সমস্যা হতে পারে। হতে পারে বমিবমি ভাবও। খাবারে হতে পারে বিষক্রিয়াও।

২. ডিম: ডিমে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে। এ কারণে বারবার এটি গরম করে খেলে এর গুণ নষ্ট হয়ে যায়। ডিমে ক্ষতিকারক ব্যাকটেরিয়া জন্মায়। তাই এটি গরম করে খেলে পেটের নানান সমস্যায় ভুগতে হতে পারে।

৩.সবুজ শাকসবজি : যেকোনোও ধরনের সবুজ শাক, যেমন-পালংশাক, লেটুস শাক, মেথির শাক কখনোই দ্বিতীয়বার গরম করে খাবেন না। এই শাকগুলিতে নাইট্রেট থাকে। যদি আপনি এগুলি গরম করে খান তাহলে এগুলি নাইট্রাইটে পরিণত হবে, যা আপনার শরীরের জন্য একদমই ভালো নয়। আর এতে রোগের ঝুঁকিও বাড়বে। তাই যেকোনোও শাকসবজি গরম না করে তাজা খাওয়াই শরীরের জন্য ভালো।

৪. আলু: বেশিরভাগ মানুষই রান্নায় আলু দিয়ে থাকেন, খাবার বেচে গেলে ফ্রিজে রেখে গরম করে খান। তবে এটি খাওয়া একদমই ভালো নয়। আলু গরম করে খেলে রক্তে শর্করার মাত্রা ধীরে ধীরে বাড়তে থাকবে। হজমের সমস্যাও হতে পারে।

৫. মুরগির মাংস: মুরগির মাংস প্রোটিনযুক্ত একটি খাবার। দ্বিতীয়বার গরম করার হলে এর প্রোটিনগুলি আরও শক্ত ও শুষ্ক হয়ে যেতে পারে। এর ফলে হতে পারে বদহজমের সমস্যাও।

৬. মাশরুম: মাশরুম উচ্চ প্রোটিনযুক্ত খাবার। এতে এমন এক ধরনের যৌগ রয়েছে যা তাপের সংস্পর্শে এলে দ্রুত ক্ষয় হতে শুরু করে। আর যদি মাশরুম দ্বিতীয়বার গরম করা হয় তাহলে এর স্বাদ ও গন্ধ নষ্ট হয়ে যাবে। রান্না করেই গরম মাশরুম খাওয়া শরীরের জন্য ভালো।