উচ্চ রক্তচাপ ক্যাফেইন থেকে

364

সারা দিন পরিশ্রমের পর কিংবা কর্ম ফাঁকে এক কাপ ধূমায়িত চা কিংবা কফি খেতে কার না ভালো লাগে? কিন্তু যাদের উচ্চ রক্তচাপ নেই, তাদেরও দেখা যায় চা কিংবা কফি পানের পর কিছু সময়ের জন্য রক্তচাপ বেড়ে যায়। দুই কিংবা তিন কাপ কফিতে যে পরিমাণ ক্যাফেইন থাকে, তার ফলে সিস্টোলিক রক্তচাপ ৩ থেকে ১৪ মিমি পারদচাপ আর ডায়াস্টোলিক রক্তচাপ ৪ থেকে ১৪ মিমি পারদচাপ বেড়ে যায়। ক্যাফেইন শরীরে কীভাবে রক্তচাপ বাড়ায় তা সঠিক জানা যায়নি। ধারণা করা হয়, রক্তনালিকে প্রসারিত করে এমন হরমোনের কার্যক্রমে ক্যাফেইন বাধার সৃষ্টি করে। আবার অনেকে মনে করেন ক্যাফেইন শরীরে অতিরিক্ত অ্যাড্রেনালিন নিঃসরণ ঘটায়। অ্যাড্রেনালিন রক্তনালিকে সংকুচিত করে, ফলে রক্তচাপ বেড়ে যায়। যারা নিয়মিত কফি পান করে থাকেন তাদের রক্তচাপ তুলনামূলকভাবে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি থাকে। নিয়মিত ক্যাফেইনযুক্ত পানীয় পান করলে এর প্রতি একপর্যায়ে সহনশীলতা সৃষ্টি হয়। এর ফলে অধিকাংশ ক্ষেত্রে দীর্ঘদিন ক্যাফেইন-পানে প্রকৃতপক্ষে রক্তচাপ বাড়ে না। তবে যারা উচ্চ রক্তচাপের রোগী তাদের ক্যাফেইনযুক্ত পানীয় অতিরিক্ত পরিমাণে পান করা উচিত নয়। সাধারণত প্রতিদিন ২০০ মিলিগ্রামের বেশি ক্যাফেইন সেবন করা ক্ষতিকর। ১২ আউন্সের দুই কাপ কফিতে এ পরিমাণ ক্যাফেইন থাকে। অবশ্য বিভিন্ন ব্র্যান্ডের কফি এবং ক্যাফেইনযুক্ত পানীয়র মধ্যে এর পরিমাণের ভিন্নতা থাকতে পারে। সুতরাং একেক ধরনের পানীয় সেবন করলে রক্তচাপ বাড়ার মধ্যেও পার্থক্য দেখা যায়। সাধারণত যেসব কাজ করলে রক্তচাপ বাড়ে তার আগে ক্যাফেইনযুক্ত পানীয় সেবন করা উচিত নয়। যাদের ক্যাফেইন গ্রহণের পর রক্তচাপ বাড়ার প্রবণতা আছে তাদের এ বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। ক্যাফেইন গ্রহণের আধ ঘণ্টার মধ্যে কারও রক্তচাপ যদি ৫ থেকে ১০ মিমি পারদচাপ বেড়ে থাকে, তাহলে তাদের অবশ্যই এ বিষয়ে সতর্ক হতে হবে। নিয়মিত কফি পানকারীর সহসা এটা বন্ধ করা ক্ষতিকর এবং প্রতিক্রিয়া হিসেবে তীব্র মাথাব্যথা হতে পারে। কফি-আসক্ত ব্যক্তিদের ক্যাফেইন গ্রহণের মাত্রা ধীরে ধীরে কমালে এমন প্রতিক্রিয়া হয় না।