ইসরায়েল-হামাস যুদ্ধবিরতির মেয়াদ একদিন বাড়লো

34

গাজায় যুদ্ধবিরতি আরও একদিন বাড়াতে সম্মত হয়েছে ইসরায়েল ও হামাস। ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনীর (আইডিএফ) পক্ষ থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল–জাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। এক বিবৃতিতে আইডিএফ বলেছে, জিম্মিদের মুক্তির প্রক্রিয়া চালিয়ে যাওয়ার জন্য মধ্যস্থতাকারীদের প্রচেষ্টার আলোকে ও চুক্তির শর্তাবলী অব্যাহত থাকার শর্তে হামাসের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি অব্যাহত থাকবে। আইডিএফের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, বুধবার রাতে যুদ্ধের মধ্যস্থতাকারী কাতার এবং মিসরের প্রতিনিধিদের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে আরও একদিন বাড়ানো হয়েছে বিরতির মেয়াদ। এদিকে হামাসের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, সপ্তম দিনের মতো যুদ্ধবিরতি বাড়াতে একটি চুক্তি হয়েছে। গত ৭ অক্টোবর গাজা উপত্যকা থেকে ইসরায়েলে হামলা চালিয়েছিল ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামীস সংগঠন হামাস। ওই হামলায় ১ হাজার ৪০০ জন ইসরায়েলি নিহত হয়। এছাড়া ইসরায়েলে ঢুকে ২৪০ জনকে আটক করে গাজায় জিম্মি করে রাখে হামাস। এর জবাবে সেদিন থেকেই গাজা উপত্যকায় নির্বিচার হামলা শুরু করে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী। টানা ৪৭ দিন ধরে ইসরায়েলি হামলায় ১৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। কাতার ও মিশরের মধ্যস্থতায় শেষ পর্যন্ত অস্থায়ী যুদ্ধবিরতিতে যেতে সম্মত হয় ইসরায়েল ও হামাস। গত ২৪ নভেম্বর শুক্রবার থেকে প্রথমে চার দিনের জন্য যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হয়েছিল। পরে সেই মেয়াদ আরও দুইদিন বাড়ানো হয়। বর্ধিত সেই মেয়াদ শেষ হচ্ছে আজ ৩০ নভেম্বর মধ্যরাতে। তার আগেই উভয়পক্ষের সমঝোতার ভিত্তিতে মেয়াদ আরও একদিন বাড়ল। যদিও নতুন করে যুদ্ধবিরতি কী শর্তের বিনিময়ে হবে, তা এখনও স্পষ্ট নয়।