আইফোন ৮ এ এশিয়ায় আগ্রহ কম

318

অ্যাপলের নতুন আইফোন ৮ নিয়ে আগ্রহে কমতি দেখা গেছে এশিয়ার দেশগুলোতে। ধারণা করা হচ্ছে, আইফোন ঢ-এর জন্য অপেক্ষা করতে আইফোন ৮ নিয়ে গ্রাহকের আগ্রহ কম। চলতি বছরের নভেম্বরেই আইফোন ঢ বাজারে আনার কথা রয়েছে অ্যাপলের। এই সময়ের মধ্যে আইফোন ৮ না কিনে নতুন আইফোনটির জন্য অপেক্ষা করছেন গ্রাহক। অ্যাপলের নতুন পণ্য উন্মোচন করা হলে সাধারণত অস্ট্রেলিয়ায় সিডনি অ্যাপল স্টোরেরে সামনে শত শত মানুষের সারি দেখা যায়, যা শহরের মূল রাস্তা, জর্জ স্ট্রিট পর্যন্ত চলে যায়। এবারে দেখা গেছে তার ভিন্ন চিত্র। সেখানে ৩০ জনের মতো গ্রাহক ছিলেন বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে রয়টার্স। আগের কয়েক বছর ধরেই অ্যাপল স্টোরের সামনে গ্রাহকের সারি কমতে দেখা গেছে। অনলাইন কেনাকাটার সুযোগ বাড়ায় স্টোরে গিয়ে আইফোন কেনার হার কমেছে। এ ছাড়া আইফোন ৮-এর দুর্বল রিভিউয়ের জন্যও গ্রাহক সংখ্যা কমেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এবার অ্যাপল স্টোরের সামনে ১১ দিন দাঁড়িয়ে ছিলেন মাজেন কোওরোওচে নামের এক ইউটিউব রিভিউয়ার। আগে আগে আইফোন ৮ নিয়ে যাতে তিনি এটির রিভিউ করতে পারেন সে কারণেই লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি। কোওরোওচে বলেন, এটি অনেকটাই আইফোন ৭-এর মতো। কিন্তু এটি সেকেন্ডে ৬০টি ফ্রেম নিয়ে ৪কে ভিডিও করতে পারে। আর এটির পেছনে ধাতব কেইসের পরিবর্তে গ্লাস ব্যবহার করা হয়েছে, যা অপেক্ষাকৃত দীর্ঘস্থায়ী। চীনে অ্যাপল্রে এক বিশ্বস্ত গ্রাহক বলেন, অনেকগুলো কারণের মধ্যে একটি কারণ হলো ক্যামেরা যার জন্য তিনি নতুন আইফোনটি কিনেছেন। প্রথমবার আইফোন উন্মোচনের ১০ বছর পর এবারই প্রথম দুর্বল রিভিউ পেয়েছে আইফোন ৮। এর প্রভাবে বৃহস্পতিবার অ্যাপলের শেয়ার মূল্য কমে ১৫২.৭৫ মার্কিন ডলারে দাঁড়িয়েছে। আইফোন ৮-এর প্রতি আগ্রহের কমতি বিষয়ে অনেকেই ধারণা করছেন, আইফোন ৮ শুধু তারাই কিনবেন যারা নতুন ডিভাইস কিনতে চাচ্ছেন কিন্তু আইফোন ঢ-এ বাড়তি ৯৯৯ মার্কিন ডলার খরচ করতে চান না।