অবশেষে খোলাসা করলেন ঐশ্বরিয়া বিচ্ছেদের দীর্ঘ জল্পনা

80

২০০৭ সালে অমিতাভ বচ্চনের ছেলে অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে সাতপাকে বাঁধা পড়েন অভিনেত্রী। প্রায় ১৬ বছরের দাম্পত্য জীবন অভিষেক-ঐশ্বরিয়ার। অভিষেকের সঙ্গে বিয়ের পর বলিপাড়ার এমন কোনও অনুষ্ঠান দেখা যায়নি, যেখানে ঐশ্বরিয়া একা উপস্থিত ছিলেন। সব সময় অভিষেকের সঙ্গেই দেখা যেত তাকে। কিন্তু গত বছরে যেন বদলে যায় সেই ছবি। একে অপরকে ছাড়াই যাচ্ছেন সব জায়গায়। গত প্রায় দু’দশকের পথচলায় একাধিকবার বিভিন্ন ধরনের গুঞ্জন তৈরি হয়েছে বচ্চন পরিবারকে ঘিরে। এবার অবশ্য সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে ২১ এপ্রিল অভিষেক ও মেয়ে আরাধ্যার সঙ্গে ছবি দিলেন ঐশ্বরিয়া। ঐশ্বরিয়া রায় ও অভিষেক বচ্চনের বিবাহবিচ্ছেদ হচ্ছে— বছরখানেক ধরে বলিপাড়ায় এই জল্পনা তুঙ্গে। শোনা যাচ্ছিল, বচ্চন পরিবারের সঙ্গে ক্রমাগত নাকি দূরত্ব বাড়ছিল অভিনেত্রীর। মাসখানেক আগে ননদ শ্বেতা নন্দার ৫০তম জন্মদিনের পার্টিতেও দেখা যায়নি অভিষেক-ঐশ্বরিয়াকে। তার আগে বচ্চনদের দীপাবলির অনুষ্ঠানেও অনুপস্থিত ছিলেন অভিনেত্রী। যার ফলেও তাদের সম্পর্কের সমীকরণ নিয়ে বেশ জলঘোলা হয়। অবশেষে নিজের ১৭তম বিবাহবার্ষিকীর দিনই বিষয়টি খোলাসা করলেন ঐশ্বরিয়া। ক্যাপশনে শুধুই হৃদয়ের ইমোজি। মায়ের কাঁধে মাথা দিয়ে রয়েছে আরাধ্যা। মেয়ের মাথায় থুতনি ঠেকিয়ে পোজ অভিষেকের, এটি ছিল একটি সেলফি, যা তুলেছেন ঐশ্বরিয়া। এই একই ছবি নিজের ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন জুনিয়র বচ্চন। আসলে গত কয়েক মাস ধরে তাদের নিয়ে যেসব জল্পনা ঘনীভূত হয়েছে, এই একটি পোস্টেই যেন সব কিছু স্পষ্ট করে দিয়েছেন ঐশ্বরিয়া-অভিষেক। তাদের দাম্পত্য জীবন যে মজবুত, সেই বার্তাই যেন দিলেন সাবেক এই বিশ্ব সুন্দরী।